banner

শেষ আপডেট ২৪ অক্টোবর ২০২১,  ১২:২৮  ||   রবিবার, ২৪ই অক্টোবর ২০২১ ইং, ৯ কার্তিক ১৪২৮

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ধর্ষক প্রযোজককে নিয়ে মুখ খুললেন

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ধর্ষক প্রযোজককে নিয়ে মুখ খুললেন

১২ অক্টোবর ২০২১ | ১৬:১৮ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ধর্ষক প্রযোজককে নিয়ে মুখ খুললেন

বিনোদন ডেস্ক :
হলিউডে হার্ভে ওয়াইনস্টাইন একজন গুণী পরিচালক, প্রযোজক এবং অভিনেতা হিসাবে সমাদৃত। তবে বর্তমানে একজন ধর্ষক হিসেবে সমালোচিত তিনি। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অসংখ্য অভিনেত্রীকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগও রয়েছে মীরাম্যাক্স ফিল্মসের অন্যতম এ প্রতিষ্ঠাতার বিরুদ্ধে।
হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি তার সঙ্গে কাজের তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুলেছেন । তিনি জানিয়েছেন ওয়াইনস্টাইনের সঙ্গে কাজ করতে চান না তিনি। এজন্য তার প্রযোজনায় মার্টিন স্কোরসেসের ‘দ্য অ্যাভিয়েটর’ -এ একটি চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।
দ্য গার্ডিয়ানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী ১৯৯৮ সালে ওয়েনস্টাইন নির্মিত ‘প্লেয়িং বাই হার্ট’র শুটিংয়ের সময়কার অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন। যখন তিনি মাত্র ২৮ বছরের একজন অভিনেত্রী। জোলি বলেন, ‘সে সময় ওয়েনস্টাইন বেশ কয়েকবার আমার উপর হামলার চেষ্টা করেছে। আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে। শুটিংয়ের সময় আমি যেন ঘরের বাইরে কোথাও নিরাপদ ছিলাম না। তার আক্রমণ নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকতাম।
আমি দেখতাম সবার প্রতিই সে লোভী। আমি তার থেকে দূরে থাকতাম। তার সম্পর্কে মানুষকে সতর্ক করেছিলাম। আমার মনে আছে জনি (জনি লি মিলার) আমার প্রথম স্বামী, সে এই কথাটি অন্যান্যদের জানিয়েছিলো যে কোনো মেয়েকে ওয়েনস্টাইনের কাছে একা যেতে দেবে না।’
যদিও ওয়াইনস্টাইন জোলির সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
জোলি সাক্ষাৎকারে আরও অভিযোগ করেন যে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার সাবেক স্বামী পিট ২০১২ সালের চলচ্চিত্র ‘কিলিং দেম সফটলি’ প্রযোজনার জন্য ওয়েইনস্টাইনের কাছে গিয়েছিলেন। যা জোলিকে হতাশ করেছিলো। তিনি বলেন, ‘এ নিয়ে আমাদের ঝগড়া হয়েছিলো। খুব কষ্ট পেয়েছিলাম আমি।’
প্রসঙ্গত, পিটের সঙ্গে জোলির বিবাহ বিচ্ছেদ ২০১৯ সালে চূড়ান্ত হয়েছে। তাদের ছয় সন্তানের অধিকার প্রসঙ্গে একটি আইনি লড়াই এখনও চলছে।