banner

শেষ আপডেট ৫ মার্চ ২০২১,  ২৩:১৮  ||   শনিবার, ৬ই মার্চ ২০২১ ইং, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭

মানুষের ভোটের অধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকার জোর করে কেড়ে নিচ্ছে সরকার—মির্জা ফখরুল

মানুষের ভোটের অধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকার জোর করে কেড়ে নিচ্ছে সরকার—মির্জা ফখরুল

৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ২০:৫০ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • মানুষের ভোটের অধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকার জোর করে কেড়ে নিচ্ছে সরকার—মির্জা ফখরুল

ঢাকা অফিস: জনগণের ক্ষমতা জনগণের নিকট ছেড়ে দেওয়া না হলে অবৈধ সরকারের রাজসিংহাসন যেকোনো মুহূর্তে দুমড়ে-মুচড়ে ফেলবে এদেশের স্বাধীনতাকামী মানুষ।আজ বুধবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগের রাতে ভোটের মাধ্যমে নির্লজ্জভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী সরকার এখন ফ্যাসিবাদী কায়দায় দেশ শাসন শুরু করেছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের রাজনীতির অঙ্গন থেকে সরিয়ে দিতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা মামলা দায়ের এবং আদালত কর্তৃক জামিন নামঞ্জুর যেন বর্তমান আওয়ামী সরকারের দৈনন্দিন কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে। আর এই কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে মানুষের ভোটের অধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকার জোর করে কেড়ে নেয়া হয়েছে।

ফখরুল আরো বলেন, দেশকে বিরোধী দলশূন্য করতে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কোনো কারণ ছাড়াই মিথ্যা মামলা দিয়ে কারান্তরীণ করা হচ্ছে। ভুয়া, বানোয়াট ও সাজানো মামলায় বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক সালাহউদ্দিন আহমেদের জামিন বাতিল করে তাকে কারাগারে প্রেরণ বর্তমান গণধিকৃত সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মেরই অংশ।

তিনি বলেন, ক্ষমতাসীনরা বিরোধী নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা, তাদের ওপর হামলা, নির্যাতন-নিপীড়ন, গুম, বিচারবহির্ভূত হত্যা, অপহরণ, চাঁদাবাজি ও দখলবাজিকে জাতীয় সংস্কৃতির অংশ করতে নানাবিধ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। সরকার দেশ শাসনে নজিরবিহীন ব্যর্থতা ঢাকতেই বিএনপি নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটকে রাখতে উন্মাদ হয়ে গেছে।

তিনি অবিলম্বে সালাহউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অসত্য মামলা প্রত্যাহার এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।