banner

শেষ আপডেট ১০ জানুয়ারী ২০২১,  ২১:০৯  ||   বুধবার, ২০ই জানুয়ারী ২০২১ ইং, ৭ মাঘ ১৪২৭

রাঙ্গুনিয়ায় আওলাদের রাসুলের নেতৃত্বে জশনে জুলুশে জনতার ঢল

রাঙ্গুনিয়ায় আওলাদের রাসুলের নেতৃত্বে জশনে জুলুশে জনতার ঢল

২৯ অক্টোবর ২০২০ | ১৮:১৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • রাঙ্গুনিয়ায় আওলাদের রাসুলের নেতৃত্বে জশনে জুলুশে জনতার ঢল
রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষ্যে রাহনুমায়ে শরিয়ত ও ত্বরিকত আওলাদে রাসূল শাহজাদা সৈয়্যদ মুহাম্মদ ওবাইদুল মোস্তফা নঈমী মাদ্দাজিল্লুহুল আলী ও মেহমানে আলা শাহ্জাদা সৈয়্যদ মুহাম্মদ শহিদুল মোস্তফা নঈমী মাদ্দাজিল্লুহুল আলীর নেতৃত্বে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় জশনে জুলুসে জনতার ঢল নেমেছে।আজ বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে নয়টায় আঞ্জুমান-এ এহইয়ায়ে সুন্নাহ বাংলাদেশ এর ব্যবস্থাপনায় উপজেলার রাহাতিয়া দরবার থেকে ৫৫তম জশনে জুলুশ শুরু হয়।
রাহাতিয়া দরবার পেরিয়ে হাজার হাজার সুন্নি জনতার অংশগ্রহণে জনসমুদ্রে পরিণত হয় জশনে জুলুসে ঈদে মিলাদন্নবী।
এসময় ইয়া নবী সালাম আলাইকা, ইয়া রাসুল সালাম আলাই‍কা, সবচে আওলা ও আ’লা হামারা নবী, সবচে বালা ও আলা হামারা নবী, ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে রাঙ্গুনিয়ার জমিন।বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রাহাতিয়া দরবারে এসে জড়ো হতে থাকেন। রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসা লোকজন জুলুসে যোগ দেন।
জুলুস শুরুর আগে রাহাতিয়া দরবার হতে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনায় দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন শাহজাদা সৈয়্যদ মুহাম্মদ ওবাইদুল মোস্তফা নঈমী আশরাফি।
আঞ্জুমান-এ- এহইয়ায়ে সুন্নাহ বাংলাদেশের সচিব মাওলানা নেজাম উদ্দিন জানান, হুজুর সৈয়্যদ মুহাম্মদ ওবাইদুল মোস্তফা নঈমী মাদ্দাজিল্লুহুল আলীর নের্তৃত্বে জনশে জুলুস রাহাতিয়া দরবার থেকে শুরু হয়ে রোয়াজারহাট, ইছাখালি, গোডাউন, গোচরা বাজার হয়ে জামেয়া নঈমীয়া তৈয়বীয়া ফাজিল মাদ্রাসার মাঠে গিয়ে শেষ হয়েছে।
জুলুশে উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গুনিয়া নুরুল উলুম কামিল (এম এ) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. মাওলানা নাছির উদ্দিন তৈয়বী, উপাধক্ষ ড. মাওলানা আব্দুল হালিম, মাওলানা মুরাদউল্লাহ নঈমী, মাওলানা আবুল কাসেম, মাওলানা আলতাফ হোসাইন নঈমী, মাওলানা নেজাম উদ্দিন, মাওলানা আ ন ম নাজমুল হোসাইন, মাওলানা আইয়ুব নূরী, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, মাওলানা হারুনুর রশিদসহ সামাজিক  রাজনৈতিক বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ।
৫৫ তম জশনে জুলুশের আহবায়ক ছিলেন তথ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকতা এমরুল করিম রাশেদ ও যুগ্ম আহবায়ক জসিম মুন্সি।
শেষে শাহজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ ওবাইদুল মোস্তফা নঈমী আশরাফি মোনাজাতের মাধ্যমে জুলুশের আনুষ্ঠানিকতা সমাপ্ত ঘোষণা করেন।