banner

শেষ আপডেট ২৬ অক্টোবর ২০২০,  ২০:০৩  ||   সোমবার, ২৬ই অক্টোবর ২০২০ ইং, ১১ কার্তিক ১৪২৭

আনোয়ারার বরুমচড়া থেকে ইয়াবা ও স্বামী-স্ত্রীসহ আটক ৩

আনোয়ারার বরুমচড়া থেকে ইয়াবা ও স্বামী-স্ত্রীসহ আটক ৩

১৭ অক্টোবর ২০২০ | ১৫:০১ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আনোয়ারার বরুমচড়া থেকে ইয়াবা ও স্বামী-স্ত্রীসহ আটক ৩

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: আনোয়ারা থানাধীন বরুমচড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৯ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার এবং স্বামী-স্ত্রীসহ ৩জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক এবং মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করেছে র‌্যাব-৭।
র‌্যাব-৭, গোপন সংবাদের মাধ্যমে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী একটি প্রাইভেটকার যোগে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য নিয়ে কক্সবাজার হতে চট্টগ্রামের দিকে আসছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল ১৬ অক্টোবর র‌্যাব-৭ এর একটি দল আনোয়ারা থানাধীন বরুমচড়া সাকিনস্থ বরুমচড়া রাস্তার মাথা, ইমাম আজম জমহুরিয়া জামে মসজিদের পূর্বপাশে বাঁশখালী-চট্টগ্রাম পাকা রাস্তার উপর একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করে।

এসময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা একটি প্রাইভেটকারের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা প্রাইভেটকারটিকে থামানোর সংকেত দিলে প্রাইভেটকারটি র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে না থামিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে প্রাইভেটকারটি আটক করে আসামী মোঃ জসিম উদ্দিন (৩৯), মোঃ ফারুক (৪০), এবং মোসাঃ সেলিনা (৩০),কে আটক করে।

পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেখানো ও সনাক্ত মতে প্রাইভেটকারের পিছনের ডান পাশের দরজায় সংযুক্ত সাউন্ড বক্সের পাশে বিশেষ কায়দায় রক্ষিত অবস্থায় ১৯ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীদের’কে গ্রেফতার করা হয় এবং উক্ত প্রাইভেটকারটি (ঢাকা-মেট্রো-গ-২৭-৫৮৮৯) জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘ দিন যাবৎ কক্সবাজার জেলার সীমান্ত এলাকা হতে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে পরবর্তীতে বিভিন্ন কৌশলে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদের নিকট বিক্রয় করে আসছে।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ৯৭ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা এবং উদ্ধারকৃত প্রাইভেটকারের আনুমানিক মূল্য ২০ লক্ষ টাকা।
গ্রেফতারকৃত আসামী ও উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে আনোয়ারা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।