banner

শেষ আপডেট ১০ অগাস্ট ২০২০,  ২০:০৭  ||   সোমবার, ১০ই আগষ্ট ২০২০ ইং, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭

স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর ১২৪ কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ

স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর ১২৪ কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ

৯ জুলাই ২০২০ | ২১:৪৩ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর ১২৪ কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ

লিটন কুতুবী : বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কোম্পানী (বিপিসি) শাখার প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর ১২৪ কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ উঠেছে। এতে উক্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মরত কমকর্তা কর্মচারীদের বেতন বন্ধ হওয়ার উপদ্রব হয়ে উঠেছে। ঢাকা শান্তিনগরে অবসস্থিত স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানী লিমিটেডের পরিচালক মিশু মিনহাজ প্রতিষ্ঠানের মালামাল ও নগদ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ উঠে।
প্রাপ্ত সূত্রে আরো অভিযোগ উঠে,এ প্রতিষ্ঠানে বিগত ১০ বছর যাবৎ বোর্ডের সিদ্ধান্তকে না মেনে তাদের মনগড়া সিদ্ধান্তে কোম্পানীর প্রশাসনিক কর্তাদের চাপে রেখে প্রায় ১২৪ কোটি টাকার মালামাল ও নগদ টাকা আত্নসাত করে।এ আত্নসাতের প্রভাবে স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর প্রায় ২৫০ জন কর্মকর্তা,কর্মচারীর বেতনভাতা বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়ে পড়েছে।
এ ব্যাপারে স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর ডাইরেক্টর শহিদুল আলমের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান,বিগত ১০ বছর ধরে উক্ত কোম্পানীটি মিশু মিনহাজ ও মোঃ মঈন উদ্দিন দুই ভাই পরিচালনা করে আসছেন। বোর্ড বৈঠকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১২৪ কোটি টাকা এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানী তাদের থেকে পাওনা আছে। এমনকি উক্ত কোম্পানীতে ২০ কোটি টাকা জমাও করেন। প্রতি মাসে ৩ কোটি টাকা জমা করার সিদ্ধান্ত হয়। প্রতিষ্ঠান পরিচালক মিশু মিনহাজ বিষয়টি নিয়ে আপত্তি ও তোলেন।
বিষয়টি নিয়ে স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানীর পরিচালক মিশু মিনহাজের সাথে তার (০১৭৫৭৩৩৬৬১৪) মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলে তিনি ধরেননি। তাই তার বক্তব্য দেয়া সম্ভব হয়নি।