banner

শেষ আপডেট ১০ অগাস্ট ২০২০,  ২০:০৭  ||   সোমবার, ১০ই আগষ্ট ২০২০ ইং, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭

নাঙ্গলকোটে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ

নাঙ্গলকোটে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ

৬ জুলাই ২০২০ | ২২:১০ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • নাঙ্গলকোটে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ
মীর হোসেন মোল্লা (আরমান) : কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাঙ্গড্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি,কুমিল্লাবিডি ডট কমের ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক আলহাজ্ব সাইফুল ইসলামকে জড়িয়ে গতকাল (৫ জুলাই)রোববার দৈনিক সমকাল ও নয়াদিগন্ত পত্রিকায় একটি সংবাদ প্রকাশ হয়েছে।এর প্রতিবাদে আজ সোমবার ৬ জুলাই দুপুরে উপজেলার বাঙ্গড্ডা একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে পর স্হানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
এতে উপস্হিত ছিলেন, ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ,সাধারণ সম্পাদক পেয়ার আহাম্মদ, ইউপি সদস্য ইসহাক,জামাল,ইউপি যুবলীগ যুগ্ম-আহবায়ক দীলিপ মজুমদার, আবু জাফর মজুমদার,  আওয়ামী লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ ।
এসময় লিখিত বক্তব্যে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, বাঙ্গড্ডা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম মজুমদার বলেন, মহামারি করোনার সময়েও হত্যা, খুন, মিথ্যাচার, অসামাজিক কর্মকাণ্ড দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।সম্প্রতি রায়কোট উত্তর ইউপির মন্তলী ব্রীজে এক ব্যাক্তির লাশ পাওয়া যায়। তিনি শ্রীরামপুর গ্রামের মহসিন।মহসিনের হত্যাকান্ড নিয়ে ২/১ জন সাংবাদিক ও আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ এই হত্যাকান্ডে আমাকে জড়িয়ে অপপ্রচার করে আসছে।শুধু তাই নয়, এই অপপ্রচারকারীরা আমাকে এবং আমার রাজনৈতিক সুনাম নষ্ট করতে একটি মহল অপপ্রচার করে আসছে।
মহসিন বাঙ্গড্ডা ইউপির আঙ্গুলখোঁড় গ্রামে পরিবার সহ বসবাস করে আসছেন।তিনি একজন শ্রমজীবী মানুষ।তাঁর হত্যাকান্ড নিন্দনীয়, ঘৃণিত ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।আমি প্রথমেই আপনাদের মাধ্যমে আইন শৃংখলা বাহিনীকে আহবান জানাবো ঘটনা তদন্ত করে খুনিদের আইনের আওতায় আনা হোক।
মহসিন আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নয়,আমার ব্যবসায়ী পার্টনারও নয়,তার সাথে কোন ধরনের মান-অভিমান বা শত্রুতা মুলক কোন কিছুই আমার সাথে ছিলো না।অথচ নিহতের ভাইয়ের বরাত দিয়ে আমার বিরুদ্ধে খুনের ঘটনার সাথে জড়িয়ে সংবাদ ছাপিয়ে দিলো ২/১ টি পত্রিকা।এটি হলুদ সাংবাদিকতার পর্যায়ে পড়ে।কারন নিউজে আমার বক্তব্য নেয়া হয়নি ।
আমি বাঙ্গড্ডা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও নাঙ্গলকোট উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক,কুমিল্লাবিডি ডট কমের ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক পদে আছি।এলাকায় নিজের সাধ্যানুযায়ী গরীব ও আসহায়দের সাহায্য সহায়তা করে থাকি।সামাজিক বিরোধ নিষ্পত্তিতে নিরপেক্ষ থেকে সমাধান করার চেষ্টা করি।কারো কাছ থেকে কখনো ঘুষ গ্রহন করি নাই।আমার উপস্থিতির কারনে অনেক সময় ঘুষখোর জনপ্রতিনিধি ও সমাজপতিগণ অন্যায় বিচার চাপিয়ে দিয়ে আসতে পারেন না।তাছাড়া বাঙ্গড্ডার সর্বস্তরের জনগণ জানেন আমি আগামিতে বাঙ্গড্ডা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা (প্রার্থী) । এসব কারনে আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ, ঘুষখোর জনপ্রতিনিধি ও অন্যায়ের সাথে জড়িত কিছু সমাজপতি আমাকে সহ্য করতে পারেন না। তারা কোথাও সমস্যা হলেই আমাকে সেখানে টেনে নিয়ে জড়ানোর অপচেষ্টা চালান। নিহত মহসিনের সাথে জড়িয়ে সংবাদ পরিবেশনও আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ াত্র।
আমার ধারনা, আমার প্রতিপক্ষ ২/১ জন হলুদ সাংবাদিককে দিয়ে আমাকে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার করে আমাকে রাজনৈতিক ভাবে ঘায়েল করার অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। তাদের বিরুদ্ধে আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, পৌর মেয়রের সাথে পরামর্শ করে তাদের জন্য আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। সে সাথে আইন শৃংখলা বাহিনীকে অনুরোধ করবো দ্রুততম সময়ে নিরপেক্ষ তদন্ত করে এই খুনের সাথে জড়িতদেরকে আইনের আওতায় আনা হোক। আমি খুনের ঘটনায় তীব্রনিন্দা জানাচ্ছি এবং খুনিদের ফাঁসি দাবি করছি।