banner

শেষ আপডেট ২৩ এপ্রিল ২০২০,  ১৪:০৬  ||   বুধবার, ২৭ই মে ২০২০ ইং, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ছাত্রলীগের ৮৬ কোটি টাকার চাঁদাবাজি ঢাকতে ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করে দিয়েছে–রিজভী

ছাত্রলীগের ৮৬ কোটি টাকার চাঁদাবাজি ঢাকতে ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করে দিয়েছে–রিজভী

১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ২১:১৫ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ছাত্রলীগের ৮৬ কোটি টাকার চাঁদাবাজি ঢাকতে ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করে দিয়েছে–রিজভী

ঢাকা অফিসঃ ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি ঢাকতেই ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, ছাত্রলীগের ৮৬ কোটি টাকার চাঁদাবাজি ঢাকতে আদালতের মাধ্যমে সরকার ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করে দিয়েছে।আজ রবিবার দুপুরে বিশ্ব গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে নয়াপল্টনে বিএনপি ও এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে রিজভীর নেতৃত্বে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় হয়ে ঢাকা ইন্স্যুরেন্স ভবনের সামনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

রিজভী বলেন, ‘গণতান্ত্রিক কাউন্সিল আজকে আদালতের মাধ্যমে বন্ধ করা হয়েছে। গণতন্ত্রের হত্যাকারীরা আদালতকে কসাইয়ের ছুরি হিসেবে ব্যবহার করা করেছে।’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘চাঁদাবাজির কারণে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অব্যাহতি নিতে হয়েছে। তাদের ৮৬ কোটি টাকার চাঁদাবাজি ঢাকতে আদালতের মাধ্যমে ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ করা হয়েছে।’

রিজভী বলেন, ‘আজকে বিশ্ব গণতন্ত্র দিবস। বিশ্বের মানুষ কথা বলার জন্য, মত প্রকাশের জন্য যুদ্ধ করছে, সংগ্রাম করছে।’
সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কী দুর্নীতি করেছে? আপনারা তার কোনো দুর্নীতির প্রমাণ দিতে পারেন নাই। তারপরও তাকে কারান্তরীণ করে রাখা হয়েছে। কারণ তিনি গণতন্ত্রের প্রতীক। বেগম জিয়া দেশে বারবার গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনেছেন। তিনি থাকলে মধ্যরাতের নির্বাচন করতে পারতেন না, স্বাধীনতার ওপর আঘাত করতে পারতেন না।’

দেশে কর্তৃত্ববাদ নয়, গণতন্ত্রই টিকে থাকবে বলেও মন্তব্য করেন রিজভী।

বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, ছাত্রদলের সাবেক সহসভাপতি মো. নাজমুল হাসানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা সমাবেশে অংশ নেয়।