banner

শেষ আপডেট ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯,  ২২:১৭  ||   সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং, ১ আশ্বিন ১৪২৬

কুতুবদিয়ায় সড়ক দখলকে কেন্দ্র করে ৫ ঘন্টা পরিবহণ বন্ধ

কুতুবদিয়ায় সড়ক দখলকে কেন্দ্র করে ৫ ঘন্টা পরিবহণ বন্ধ

২০ অগাস্ট ২০১৯ | ২১:১৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • কুতুবদিয়ায় সড়ক দখলকে কেন্দ্র করে ৫ ঘন্টা পরিবহণ বন্ধ

লিটন কুতুবী,কুতুবদিয়া : কুতুবদিয়া দ্বীপে জীপ,টেম্পু পরিবহণ মালিক সমিতির দুই পক্ষের সড়ক দখল নিয়ে বিরোধে আজম সড়কে ৫ ঘন্টা পরিবহণ চলাচল বন্ধ ছিল। এতে শতশত যাত্রী চরম দূর্ভোগে পড়েছিল। আজ মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আজম সড়কে এ ঘটনা ঘটে।
কুতুবদিয়া জীপ মালিক সমিতির সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর বলেন, কুতুবদিয়া দ্বীপে গণ পরিবহণ হিসেবে জীপ, টেম্পু রয়েছে। তন্মধ্যে আজম সড়ক ১৭ কিলোমিটারে যাত্রী নিয়ে জীপ চলাচল করে। দরবার ঘাট হতে ধুরুং বাজার পর্যন্ত সেন্ট্রাল সড়কে টেম্পু চলাচল করে। বড়ঘোপ বাজার হতে আলী আকবর ডেইল ঘাটঘর পর্যন্ত টেম্পু চলাচল করে। সড়ক পরিবহণে কুতুবদিয়া দ্বীপের অভ্যন্তরে দুইটি টেম্পু মালিক সমিতি ও একটি জীপ মালিক সমিতির সংগঠন রয়েছে। এ তিন সংগঠনের কুতুবদিয়া দ্বীপের অভ্যন্তরের যাত্রী পরিবহণ নিয়ন্ত্রণ করে।
জীপ মালিক সমিতির সেক্রেটারী মোঃ নুরুল আনচার চৌধূরী বলেন, যুগযুগ ধরে জীপ মালিক সমিতির নিয়ন্ত্রিত জীপ গাড়ি উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের আকবরবলী ঘাট হতে আলী আবকর ডেইল ইউনিয়নের তাবলরচর বাজার পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার আজম সড়কে যাত্রী পরিবহণ করে যাচ্ছে। ধুরুং আন্তঃজোন টেম্পু মালিক সমিতি টেম্পু গুলো দরবারঘাট হতে সেন্ট্রাল রোড দিয়ে ধুরুং বাজারে যায়।
দক্ষিণ ধুরুং ইউপির চেয়ারম্যান ও জীপ মালিক সমিতির উপদেষ্টা ছৈয়দ আহমদ চৌধূরী বলেন, বিগত তিন বছর পূর্বে সেন্ট্রাল রোর্ড সংস্কারের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের (এলজিইডি) অর্থায়নে কাজ শুরু করে। সড়কের কাজ শেষ না করে ঠিকাদার চলে যায়। যার ফলে ঐ সড়ক দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নিরুপায় হয়ে ধুরুং আন্তঃজোন টেম্পু মালিক সমিতি জীপ মালিক সমিতির সাথে তিন মাসের সড়ক ব্যবহারের চুক্তি হয়। ঐ চুক্তির মেয়াদ তিন মাসের ক্ষেত্রে তিন বছর অতিবাহিত হয়ে যায়। সেন্ট্রাল সড়ক সংস্কার না হওয়ায় অদ্যবদি পর্যন্ত টেম্পু আজম সড়ক দিয়ে যাত্রী পরিবহণ করে যাচ্ছে। আজম সড়কের যাত্রী টেম্পু পরিবহণ করায় জীপ পরিবহণের সাথে বিরোধের সৃষ্টি হয়।
এ বিরোধকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সকাল ৯টা হতে ১টা পর্যন্ত পুলিশের বাঁধার আজম সড়কে জীপ চলাচল বন্ধ রাখে। আজম সড়কে যাত্রী দূর্ভোগের বিষয় নিয়ে জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কামনা করে যাত্রীরা। যার ফলশ্রুতিতে উপজেলার চেয়ারম্যান এডভোকেট আলহাজ ফরিদুল ইসলাম চৌধূরীর হস্তক্ষেপে পূণরায় মঙ্গলবার দুপুর ১টায় জীপ যাত্রী পরিবহণ চালু করে।
কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউস জানান, মঙ্গলবার সকালে জীপ পরিবহণ ও টেম্পু পরিবহণ আজম সড়কে যাত্রী পরিবহণে শ্রমিকরা সড়কে গাড়ি রেখে অবরোধ সৃষ্টি করে। পুলিশ সড়কে যাত্রী চলাচলের সুবিধার্থে জীপ গাড়ি সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। তবে পুলিশের হস্তক্ষেপে তিন ঘন্টা পর সড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়।
ধুরুং আন্তঃজোন টেম্পু মালিক সমিতির সভাপতি কাজি পারভেজ আকতার মানিক ও সম্পাদক ডাক্তার আবুল কালম জানান, সেন্ট্রাল সড়ক ভাঙ্গা থাকায় আপাতত দরবারঘাট টু ধুরুং বাজার টেম্পু সার্ভিস আজম সড়ক দিয়ে যাচ্ছে। সড়ক মেরামত কাজ শেষ হলে টেম্পু সেন্ট্রাল সড়ক দিয়ে চলাচল করবে।