banner

শেষ আপডেট ২৬ অগাস্ট ২০১৯,  ১০:৪৮  ||   সোমবার, ২৬ই আগষ্ট ২০১৯ ইং, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

হালদা দূষণের অভিযোগে পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা

হালদা দূষণের অভিযোগে পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা

১৭ জুলাই ২০১৯ | ২০:৩৩ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হালদা দূষণের অভিযোগে পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা

ক্রাইম প্রতিবেদকঃ  হাটহাজারীর ১০০ মেগাওয়াট পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদফতর।দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদা নদীর পানি দূষণের অপরাধে এমন জরিমানা করা হয়েছে। আজ বুধবার পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক মোয়াজ্জেম হোসাইন নিজ দফতরে বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে দূষণের অভিযোগ সংক্রান্ত শুনানি শেষে এই আদেশ দিয়েছেন। ওই বিদ্যুৎকেন্দ্রের তরল বর্জ্য পরিশোধনাগার (ইটিপি) ও অয়েল ওয়াটার সেপারেটর স্থাপন না করা পর্যন্ত তাদের বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ রাখারও আদেশ দিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর।
এর আগে ভারি বর্ষণের মধ্যে গত ৮ জুলাই সকালে হাটহাজারী উপজেলার এগারো মাইল এলাকায় বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে তরল বর্জ্য ছেড়ে দেওয়া হয়। খবর পেয়ে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন ঘটনাস্থলে যান। তিনি পরিবেশ অধিদফতরে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপর ওইদিনই পরিবেশ অধিদফতরের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। তারা দেশের কার্প জাতীয় মাছের একমাত্র প্রজননক্ষেত্র হালদায় বর্জ্য আসার প্রমাণ পান। এই বর্জ্য পানির সঙ্গে মিশে হালদায় মা মাছের বিচরণ ও প্রজননকে হুমকির মুখে ফেলছে বলে অভিযোগ পরিবেশ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের।
পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম অঞ্চলের সহকারি পরিচালক (কারিগরি) মুক্তাদির হাসান বলেন, বিদ্যুৎকেন্দ্রের তরল বর্জ্য ফেলে মরছড়া খাল হয়ে হালদা নদীর পানির সঙ্গে মিশে যাবার প্রমাণ পাওয়ার পর তাদের শুনানিতে হাজিরের নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। শুনানি শেষে পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ এর ৭ ধারায় ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।