banner

শেষ আপডেট ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,  ২৩:১৫  ||   রবিবার, ২২ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

লোহাগাড়া থেকে ইয়াবাসহ শাহ আমিন সার্ভিসের একটি বাস জব্দ: আটক ১

লোহাগাড়া থেকে ইয়াবাসহ শাহ আমিন সার্ভিসের একটি বাস জব্দ: আটক ১

৭ জুন ২০১৯ | ১৯:৪৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • লোহাগাড়া থেকে ইয়াবাসহ শাহ আমিন সার্ভিসের একটি বাস জব্দ: আটক ১

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : লোহাগাড়া থানার পদুয়া বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭,৭৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ এবং মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ‘‘শাহ আমিন সার্ভিস’’ পরিবহনের একটি বাস জব্দ।
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী ‘‘শাহ আমিন সার্ভিস’’ পরিবহনের একটি বাস যোগে বিপুল পরিমান ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে কক্সবাজার হতে চট্টগ্রামের দিকে আসছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ ৭ জুন র‌্যাবের একটি  দল লোহাগাড়া থানাধীন পদুয়া বাজারস্থ চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের উপর একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি করতে থাকে। এ সময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা কক্সবাজার হতে চট্টগ্রামগামী ‘‘শাহ আমিন সার্ভিস’’ পরিবহনের একটি বাসকে তল্লাশীর জন্য থামানোর সংকেত দিলে ড্রাইভার র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে এসে থেমে যায়। তাৎক্ষনিক র‌্যাব সদস্যরা গাড়ি এবং যাত্রী তল্লাশী শুরু করলে বাসের ভিতর থেকে ২ জন ব্যক্তি বের হয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে আসামী হেলপার শহিদুল ইসলাম (৫৫),কক্সবাজার’কে আটক করে। তাৎক্ষনিক অপর আসামী বাসের সুপারভাইজার মোঃ হারুন (৩০), সুকৌশলে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তার দেখানো ও সনাক্তমতে উক্ত বাসটি তল্লাশী করে বাসের ভিতরে অভিনব কায়দায় লুকানো অবস্থায় ৭,৭৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ উক্ত বাসটি (ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৪৩২৯) জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে আরো ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা বাসের হেলপার এবং সুপারভাইজার এর চাকুরী করার আড়ালে বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে যোগসাজশে কক্সবাজার হতে ইয়াবা ট্যাবলেট সংগ্রহ করে বাসের মাধ্যমে বিভিন্ন কৌশলে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পাচার করে আসছে। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ৩৮ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা।
পলাতক আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামী, উদ্ধারকৃত মালামাল সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে লোহাগাড়া থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।