banner

শেষ আপডেট ১৫ জুন ২০১৯,  ১৯:২৩  ||   রবিবার, ১৬ই জুন ২০১৯ ইং, ২ আষাঢ় ১৪২৬

খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করেছে–আবদুল্লা আল নোমান

খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করেছে–আবদুল্লা আল নোমান

৩১ মে ২০১৯ | ২১:৩৪ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করেছে–আবদুল্লা আল নোমান

 ক্রাইম প্রতিবেদকঃ খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে চট্টগ্রাম থেকে আন্দোলন শুরু করতে হবে। চট্টগ্রাম আন্দোলনের সূতীকাগার। বৃটিশ বিরোধী আন্দোলন চট্টগ্রাম থেকে হয়েছে, শহীদ প্রেসিডেন্টে জিয়াউর রহমান চট্টগ্রাম থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন, স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলন চট্টগ্রাম থেকে হয়েছে। তাই বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন চট্টগ্রাম থেকে শুরু করতে হবে।  আজ ৩১ মে শুক্রবার চকবাজারস্থ কিশলয় কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও চবি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল আয়োজিত শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়ার ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকীর আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আবদুল্লা আল নোমান আরো বলেন, দলের সাংগঠনিক ভীত মজবুত করতে হলে, সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। দলের নেতাকর্মীদের ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।দেশের জনগণ আজ আমাদের পক্ষে আছে। জনগণকে মাঠাতে নামাতে হলে তাদেরকে আন্দোলনে সম্পৃক্ত করতে হবে। সরকারকে পরাজিত করতে হলে শহীদ জিয়ার আদর্শকে ধারণ করতে হবে। শহীদ জিয়ার বহুদলীয় গণতন্ত্র আজ মানুষের হৃদয়ে স্থান করে আছে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সন আপোসহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করে রেখেছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির বলেন, বাংলাদেশে স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্র রক্ষার জন্য বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি অপরিসীম। তাকে বাদ দিয়ে দেশের গণতন্ত্র চর্চ্চা পরাভূত হবে। তাই গণতন্ত্রের স্বার্থে, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের স্বার্থে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। দেশের কোন মানুষ আজ নিরাপদ নয়। দুর্নীতি, দু:শাসান নির্যাতনে অতীষ্ট এদেশের জনগণ।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানরগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, কারাগারে আজ ও মানুষ নিরাপদ নয়। তাহলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? এই অবৈধ সরকার অনৈতিকভাবে  ক্ষমতায় আসার কারণে সর্বক্ষেত্রে দুর্নীতি, দু:শাসন, গুম, খুন, নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হচ্ছে এদেশের সাধারণ মানুষ। অনৈতিকভাবে ক্ষমতায় আসার কারণে নৈতিকতা হারিয়ে ফেলেছে এই সরকার। তাই এই অনৈতিক সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের বিকল্প নেই। বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তির আন্দোলনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে এগিয়ে আসতে হবে।
চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী সিরাজ উল্লাহর সভাপতি ও নগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী ও চবি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল নোমানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, প্রফেসর সিদ্দিক আহমদ, সাংবাদিক জাহিদুল করিম কচি।

আরো বক্তব্য রাখেন নগর বিএনপির সহ-সভাপতি ইকবাল চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আবদুল মান্নান, আনোয়ার হোসেন লিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, কোতোয়ালী থানা বিএনপির সভাপতি মনজুর রহমান চৌধুরী, নগর মৎস্যজীবিদলের সভাপতি নুরুল হক, নগর বিএনপির নেতা আবদুল হালিম স্বপন, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহসাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম তৌহিদ, সদস্য জায়েদ বিন রশিদ, শেখ রাসেল, চবি বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি খোরশেদ আলম, উত্তর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি জাহেদ আবছার জুয়েল, চবি ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লা- আল নোমান, চাঁন্দগাও থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ, উত্তর জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ ও চবি ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ।