banner

শেষ আপডেট ২০ অক্টোবর ২০১৯,  ২১:১৬  ||   রবিবার, ২০ই অক্টোবর ২০১৯ ইং, ৫ কার্তিক ১৪২৬

আগামী মাসের মধ্যে নতুন ২,৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী

আগামী মাসের মধ্যে নতুন ২,৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী

১০ এপ্রিল ২০১৯ | ২২:৪৫ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আগামী মাসের মধ্যে নতুন ২,৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী

আগামী মাসের মধ্যে নতুন ২,৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তি করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।শিক্ষামন্ত্রী আজ বুধবার মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে শিক্ষা বিটের সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মত বিনিময় শেষে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘চারটি ক্যাটাগরিতে যোগ্য হিসেবে আড়াই হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে এসব প্রতিষ্ঠানগুলো চলতি মাসে অথবা আগামী মাসের মধ্যে এমপিওভুক্তি করা হবে।’
দীপু মনি বলেন, ‘এমপিভুক্তির দাবিতে অনেক দিন ধরে শিক্ষক-কর্মচারিরা আন্দোলন করেছেন। তাদের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে আমরা অনেক আগেই এমপিওভুক্তির কাজ শুরু করেছি।’
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এমপিওভুক্তির জন্য চারটি ক্যাটাগরিতে প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন সংগ্রহ করা হয়েছে। এতে প্রায় আড়াই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।’
সকল যোগ্য প্রতিষ্ঠানকে একই সঙ্গে এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে যে সকল তথ্য দেয়া হয়েছে আমরা তা যাচাই-বাছাই করব। তাদের দেয়া তথ্য ঠিক থাকলে আগামী মাসে আড়াই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে একসঙ্গে এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেয়া হবে। নতুবা যোগ্য একটি প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়ে অপরটি পেলে এ নিয়ে সমস্যা সৃষ্টি হবে।
শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দুর্ভোগ কমাতে বড় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মেডিকেল কলেজের মত সমন্বিত বা গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে মত দিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘যদি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা সমন্বিত করতে পারি, তাহলে কেন অন্য ভর্তি পরীক্ষা সমন্বিত করতে পারব না? আমার বিশ্বাস, আমাদের যদি সবার একটু সদিচ্ছা থাকে, তাহলে নিশ্চয়ই আমরা পারব। এক্ষেত্রে আমি আশা করি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের সহযোগিতা দেবেন।’
তিনি বলেন, গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলে অনেক হয়রানি কমে যায়, অর্থ অপচয় কমে যায়, কষ্ট কমে যায়। বিশেষ করে নারী শিক্ষার্থীদের পক্ষে সম্ভব না সারাদেশে এখানে ওখানে সেখানে গিয়ে পরীক্ষায় অংশ নেয়া।