banner

শেষ আপডেট ২০ অক্টোবর ২০১৯,  ২১:১৬  ||   রবিবার, ২০ই অক্টোবর ২০১৯ ইং, ৫ কার্তিক ১৪২৬

চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্ববায়কে অব্যহতি, ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক বাবু খাঁন

চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্ববায়কে অব্যহতি, ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক বাবু খাঁন

৩ এপ্রিল ২০১৯ | ২১:১৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্ববায়কে অব্যহতি, ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক বাবু খাঁন

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির আহ্ববায় মুহা: অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে অব্যহতি দিয়ে ১নং যুগ্নআহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খাঁনকে (বাবু খাঁন) ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপিকে গতিশীল করার লক্ষে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপরসন (চেয়ারম্যান) তারেক জিয়ার নির্দেশে বর্তমান আহ্বায়ককে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার রাতে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্নমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক পত্রে দলীয় এ সীদ্ধান্তর কথা জানানো হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি’র যুগ্নআহ্বায়ক খন্দকার আব্দুর জব্বার সোনা ও মজিবুল হক মালিক মজু জানান, মাঠ পর্যায়ে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটি পর্যায়ক্রমে সকল জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দর সাথে বৈঠক করছেন। তারই ধারাবাহিকতায় পূর্ব নির্ধারীত মঙ্গলবার (২মার্চ) চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি’র নেতৃবৃন্দর সাথে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দর বৈঠক ছিল। ওই বৈঠকে আমাদের জেলা কমিটির আহ্বায়ক মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস উপস্থিত হননি। এই বৈঠকে স্কাইপিতে ভিডিও কনফারেন্সে মাধ্যমে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া সরাসরি অংশ নেন। ভিডিও কনফারেন্সে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া আমাদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলার সাংগঠনিক কর্মকান্ডের সার্বিক খোঁজখবর নেন। বৈঠকে আমাদের আহ্বায়ককে দেখতে না পেয়ে তারেক জিয়া ক্ষুব্ধ হন। ওই বৈঠকেই তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি’র বর্তমান আহ্বায়ককে অব্যহতি দিয়ে এই কমিটির ১ নং যুগ্নআহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খাঁন বাবুকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়কের দায়িত্ব দেন।
পরে মঙ্গলবার রাতেই বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্নমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক পত্রে দলীয় এ সীদ্ধান্তর কথা জানানো হয়েছে।
ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খাঁন বাবু জানান, আমাদের জেলা কমিটির আহ্বায়ক মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসের দলীয় কর্মকান্ডের উপর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্ধ ক্ষুব্ধ। আগামী দিনে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য যে আন্দোলন সংগ্রামের ডাক আসবে সেই আন্দোলন সংগ্রাম বেগবান করতে বর্তমান আহ্বায়ককে অব্যহতি দিয়ে আমাকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
আমার উপর যে বিশ্বাস আর আস্থা রেখে আহ্বায়কের দায়ীত্ব দেওয়া হয়েছে আমি তা যথাযথ ভাবে পালনের আপ্রাণ চেষ্টা করবো।
অপর এক প্রশ্নে জবাবে বাবু খাঁন বলেন, আমার প্রথম কাজ হবে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপিকে এক ছাতার তলে নিয়ে আসা।
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল হাসান তনু’র ফেসবুক স্টেটাস্ থেকে জানা যায়, জেলা কমিটির আহ্বায়ক মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে শুধু আহ্বায়ক পদ থেকে না দলের সাধারণ সদস্য থেকেও অব্যহতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি।
দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল হাসান তনু’র সাথে কথা বললে, তিনি তার ফেসবুক স্টেটাসের সতত্যা স্বীকার করেন। # #