banner

শেষ আপডেট ২৬ অগাস্ট ২০১৯,  ১০:৪৮  ||   সোমবার, ২৬ই আগষ্ট ২০১৯ ইং, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

ঢাকায় বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রকাশনার উদ্যোগ ‘বইসাঁকো’-র যাত্রা শুরু

ঢাকায় বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রকাশনার উদ্যোগ ‘বইসাঁকো’-র যাত্রা শুরু

১৮ মার্চ ২০১৯ | ২০:১২ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ঢাকায় বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রকাশনার উদ্যোগ ‘বইসাঁকো’-র যাত্রা শুরু

গত ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত ৪৩তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় যাত্রা শুরু করেছিল ‘বইসাঁকো’। এবার ঢাকায় প্রবর্তনা ঘটল এটির। ভারত-বাংলাদেশের প্রকাশনার ইতিহাসে এই প্রথম বই প্রকাশের যৌথ উদ্যোগ। দুই দেশের দুই ঐতিহ্যবাহী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘অন্যপ্রকাশ’ ও ‘পত্রভারতী’ এর উদ্যোক্তা। ‘বইসাঁকো’র ব্যানারে প্রকাশিত হয়েছে বাংলাদেশের চার ও ভারতের তিন সাহিত্যিকের বই। বাংলাদেশের সৈয়দ মনজুরুল ইসলামের ‘সেরা দশ গল্প’, ফরিদুর রেজা সাগরের ‘এবারো হাফডজন ছোটকাকু’, মারুফুল ইসলামের ‘নির্বাচিত ১০১ কবিতা’ ও মাজহারুল ইসলামের ‘হুমায়ূন আহমেদের মাকড়সাভীতি এবং অন্যান্য’। বই চারটি প্রকাশ করেছে পশ্চিমবঙ্গের প্রকাশনা সংস্থা পত্রভারতী। অন্যদিকে ভারতের সমরেশ মজুমদারের ‘কথামালা’, সত্যম রায়চৌধুরীর ‘দুনিয়াদারি’ ও ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায়ের ‘আজও রোমাঞ্চকর : স্বাধীনতার রক্তঝরা গল্প’এই তিনটি বই প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের প্রকাশনা সংস্থা অন্যপ্রকাশ।

ঢাকায় ‘বইসাঁকো’-র প্রবর্তনা উপলক্ষে আজ ১৮ মার্চ, সোমবার, বিকেলে শাহবাগস্থ জাতীয় জাদুঘরের সিনেপ্লেক্সে উক্ত বই সাতটির মোড়ক উন্মোচিত হয়। এই আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী ও পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক-গবেষক অধ্যাপক ইমানুল হক। সমরেশ মজুমদার ছাড়া প্রকাশিত গ্রন্থগুলোর অন্য লেখকেরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

‘বইসাঁকো’র এই প্রবর্তনা অনুষ্ঠানে আনিসুজ্জামানের ‘বিদ্যাসাগর ও অন্যেরা’ বইটি কলকাতায় প্রকাশের বিষয়ে ‘পত্রভারতী’র সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সমরেশ মজুমদারের ‘কথামালা’ বইটি প্রকাশের চুক্তি স্বাক্ষর করে অন্যপ্রকাশ। এছাড়াও ইতিমধ্যে প্রকাশিত অন্য বইগুলোর জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে লেখক ও দুদেশের প্রকাশকদের মধ্যে ত্রিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় এই অনুষ্ঠানে। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম এবং পত্রভারতী’র ম্যানেজিং ডিরেক্টার ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, স্বনামধন্য কথাসাহিত্যিক সমরেশ মজুমদারের এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু তিনি গতকাল হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়ায় চিকিৎসকেরা তাঁকে চলাফেরার ব্যাপারে নিষেধ করেন। ফলে তিনি উপস্থিত হতে পারেন নি।