banner

শেষ আপডেট ২২ মে ২০১৯,  ১০:৩০  ||   বুধবার, ২২ই মে ২০১৯ ইং, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গাজীপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে ওরিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত

গাজীপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে ওরিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত

৮ জানুয়ারী ২০১৯ | ২০:১৫ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • গাজীপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে ওরিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান আতিকঃ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ১৯ জানুয়ারি-২০১৯ জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) উপলক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে ওরিয়েন্টেশন সভা করেছে।আজ ৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় ওই ওরিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়।
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মোঃ আরসাদ হোসেনের সঞ্চালনায় ও সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) কে.এম রাহাতুল ইসলামের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ কামাল হোসেন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মোঃ মেহেদী হাসান, হেলথ্ অফিসার ডাঃ মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ডাঃ ফারহানা আখতার, গাজীপুরের সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ও সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার টিবি লেপ্রোসি (এমওটিবি) ডাঃ মাহমুদা আখতার, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ আকবর হোসেন, সিটি কর্পোরেশনের ফুড এন্ড স্যানিটেশন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাস, সাংবাদিক মোঃ মজিবুর রহমান, সাংবাদিক মোঃ নুরুল ইসলাম প্রমুখ।
সভায় জানানো হয়, ৬-১১ মাস বয়সী সকল শিশুকে একটি নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী সকল শিশুকে একটি লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। শিশুরা যাতে কোনোক্রমেই ভিটামিন ‘এ’ খাওয়া থেকে বাদ না পড়ে। এজন্য পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে এবং সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ হতে মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় মসজিদের মাইক দিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চালাতে হবে। যাতে সবাই এ ব্যাপারে আরো বেশি সচেতন হতে পারে।
সভায় আরো জানানো হয়, আগামী ১৯ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) উপলক্ষে গাজীপুর সিটির দুইটি জোনে ২৭টি ওয়ার্ডে প্রায় ৯৬ হাজার ১১০জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ পাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সি ১১ হাজার ২৪১জন শিশু এবং ১২মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সিদের সংখা হলো ৮৪ হাজার ৮৬৯জন শিশু রয়েছে। ক্যপসুল খাওয়ানোর জন্য ২৫৯টি কেন্দ্রে, ১৩ টি মোবাইল কেন্দ্র, ৬টি স্থায়ী কেন্দ্র এবং ৭টি ভ্যাকসিন ব্যাংক থাকবে।
সভায় গাজীপুরে কর্মরত প্রিন্ট মিডিয়া, ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস খাওয়ানোর প্রয়োজনীয়তার ওপর মাল্টিমিডিয়ার প্রজেক্টরের মাধ্যমে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করা হয়।
এর আগে সকাল ১০টায় একই কক্ষে ১৯ জানুয়ারি-২০১৯ জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) উপলক্ষে সিটি কর্পোরেশন ওরিয়েন্টেশন ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মোঃ আরসাদ হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ কামাল হোসেন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মোঃ মেহেদী হাসান, গাজীপুর মেট্রোলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার সুভাশীষ ধর, সিটি কর্পোরেশনের হেলথ্ অফিসার ডাঃ মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ডাঃ ফারহানা আখতার, গাজীপুরের সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ও সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার টিবি লেপ্রোসি (এমওটিবি) ডাঃ মাহমুদা আখতার, সিটি কর্পোরেশনের ফুড এন্ড স্যানিটেশন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাস প্রমূখ। এসময় মহানগরের বিভিন্ন প্রাথমিক, মাধ্যমিক, মাদ্রাসা, এতিম খানার শিক্ষক, স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক ৫০জন উপস্থিত ছিলেন।