banner

শেষ আপডেট ১২ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২০:০৯  ||   বৃহষ্পতিবার, ১৩ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

হাবিবুল্লাহ সিদ্দিকীকে লিগ্যাল নোটিশ

হাবিবুল্লাহ সিদ্দিকীকে লিগ্যাল নোটিশ

৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১৯:৪৯ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হাবিবুল্লাহ সিদ্দিকীকে লিগ্যাল নোটিশ

 প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ ‘পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করার বিদয়াত ও গোমরাহি’- ফেসবুকে ও আলোচনা এমন বক্তব্যের মাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ানোর দায়ে বাংলাদেশের সংবিধান ও আইন লঙ্ঘন করায় মাওলানা হাবিবুল্লাহ সিদ্দিকী, খতিব- শান্তিনগর জামে মসজিদ, রাজারহাট, কুড়িগ্রামকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবি মোহাম্মদ মাসুদুজ্জামানের মাধ্যমে লিগ্যাগ নোটিশটি পাঠিয়েছেন মাওলানা সাইয়্যিদ মুহম্মদ আব্দুল হালীম, গবেষক- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ গবেষণা কেন্দ্র ও মুয়াল্লিম- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা।

নোটিশে বলা হয়েছে, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করার স্বপক্ষে পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদিস শরীফ থেকে অসংখ্য সুস্পষ্ট দলিল রয়েছে।
নোটিশে আরো বলা হয়, যেহেতু গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করার জন্য সরকারী ভাবে ছুটি ঘোষনা করে থাকেন এবং মাননীয় রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উক্ত পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে বিশেষ বানী প্রচার করেন। এছাড়াও সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রাষ্ট্রীয়ভাবে উৎযাপন করার জন্য সরকারি প্রজ্ঞাপন জারী করা হয়েছে। সুতরাং উক্ত পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের বিরোধীতা করার মানে পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীস শরীফ উনাদের বিরোধীতা করার পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারেরও বিরোধীতা করা যা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। যাহা প্রচলিত আইন অনুযায়ী দন্ডনীয় অপরাধ। রেজিষ্ট্রী ডাকে পাঠানো নোটিশে সাত কর্মদিবসের মধ্যে তাদের বক্তব্য প্রত্যাহার পূর্বক ক্ষমা চাইতে আহবান জানানো হয়েছে। অন্যথায় নোটিশদাতা তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।