banner

শেষ আপডেট ১২ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২০:০৯  ||   বৃহষ্পতিবার, ১৩ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

সাংবাদিকরাও অবাধ নির্বাচনের পাহারাদার হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারেন–ড. কামাল

সাংবাদিকরাও অবাধ নির্বাচনের পাহারাদার হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারেন–ড. কামাল

৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১৮:৫৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সাংবাদিকরাও অবাধ নির্বাচনের পাহারাদার হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারেন–ড. কামাল

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ভোট চুরি ও নির্বাচনী আইন জাতির সামনে তুলে ধরার জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। আজ বুধবার বিকালে নয়াপল্টনে ঐক্যফ্রন্টের নতুন কার্যালয়ের উদ্বোধন শেষে এ আহ্বান জানান তিনি।

ড. কামাল বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন দেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ নির্বাচন সুষ্ঠু করার মাধ্যমে জনগণ রাষ্ট্রের মালিকানা ফিরে পাবে। সাংবাদিকরাও অবাধ নির্বাচনের পাহারাদার হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে জনগণকে পাহারাদার হতে হবে। ৩০ ডিসেম্বর সকাল সকাল কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে হবে এবং কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে।

ড. কামাল বলেন, নির্বাচনী আইন লঙ্ঘন হচ্ছে। পুলিশ এসে বিরোধী প্রার্থীকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে। ভোট চুরি ও নির্বাচনী আইন গণমাধ্যমকে জাতির সামনে তুলে ধরতে হবে।

নির্বাচনের পক্ষে জনমত তৈরি হয়েছে জানিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা বলেন, ২০১৪ সালে যেনতেন নির্বাচন করে আওয়ামী লীগ ৫ বছর ক্ষমতা ভোগ করেছে। কথা ছিল মধ্যবর্তী নির্বাচনের। কিন্তু তা তারা দেয়নি।

সরকার আবারও ২০১৪ সালের মতো যেনতেন নির্বাচন করার পাঁয়তারা করছে বলেও অভিযোগ করেন ড. কামাল। তিনি আরও বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে আসার ঘোষণা দেয়ায় সরকার অনিশ্চয়তায় পড়েছে।

জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মোহাম্মদ মনসুর, অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া প্রমুখ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।