banner

শেষ আপডেট ১২ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২০:০৯  ||   বৃহষ্পতিবার, ১৩ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ফিটকিরিতেই হবে ফেসিয়ালের ম্যাজিক

ফিটকিরিতেই হবে ফেসিয়ালের ম্যাজিক

১ নভেম্বর ২০১৮ | ২২:৩২ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ফিটকিরিতেই হবে ফেসিয়ালের ম্যাজিক

আমরা জানি জল পরিশ্রুত করতে ফিটকিরির ব্যবহার করা হয়৷ কিন্তু শুধু তাই নয় ফিটকিরির রয়েছে বিভিন্ন উপকারিতা৷ আপনি হয়ত জানেনই না ত্বকের যত্ন নিতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে ফিটকিরি৷ তাই অতি সহজেই কীভাবে ত্বকের যত্ন নেবেন দেখে নিন৷

মুখে ব্রণ হয়েছে৷ একটার পর একটা ফেসওয়াস বদলাচ্ছেন৷ কিন্তু কিছুতেই ব্রণ কমছে না৷ তাহলে নিয়মিত ব্রণতে একটু ফিটকিরি ঘষেনিন৷ প্রতি মাসে মুখের ট্যান পরিষ্কার করার জন্য পার্লারে টাকা খরচা করে যাচ্ছেন৷ অথচ আপনি জানেনই না এক চামচ মুলতানি মাটি, দু’চামচ ডিমের সাদা অংশ ও এক চামচ ফিটকিরি গুঁড়ো মিশিয়ে প্যাক বানানো যায়৷ প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এইভাবে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন এই মিশ্রণ মুখে মাখুন। দ্রুত উপকার পাবেনই৷

- Advertisement -

কথা বলতে গেলে মুখ দিয়ে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে৷ সবার সামনে মন খুলে কথা বলতে পারছেন না৷ দাঁতের ফাঁকে ব্যাকটেরিয়া জমেই এই দুর্গন্ধ হয়৷ ফিটকিরি ব্যবহার করলে আপনি এই সমস্যার সমাধান পাবেন৷ এক গ্লাস উষ্ণ গরম জলে অল্প পরিমাণ নুন ও ফিটকিরির গুড়ো মেশান৷ তারপর সেটি দিয়ে কুলকুচি করুন৷ সকালে ঘুম থেকে উঠে ও রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে দিনে দুইবার কুলকুচি করুন৷ এতে ব্যাকটেরিয়া জমতে পারবে না৷ ফলে দুর্গন্ধ হওয়ার আর সম্ভাবনা থাকবে না৷

মুখের ভিতরে ঘা হয়েছে৷ কিছুই খেতে পারছেন না৷ ঘা-এর জায়গায় ফিটকিরি লাগান৷ প্রথমে একটু জ্বালা করবে৷ কিন্তু মুখের ঘা তাড়াতাড়ি শুকবে। তবে ফিটকিরি লাগিয়ে মুখের লালা গিলে ফেলবেন না।

বয়স বাড়ছে৷ ত্বকে তার ছাপও পড়ছে৷ আর চিন্তা নেই মুখে ফিটকিরি ঘষে নিন৷ তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন৷

শিশুরা স্কুল যাচ্ছে৷ পাঁচ জনের সঙ্গে থেকে মাথায় উকুন নিয়ে বাড়ি ফিরছে৷ জলে ফিটকিরি গুঁড়ো মিশিয়ে তার মধ্যে একটু চা গাছের তেল মেশান। মিশ্রণটি ১০ মিনিট ধরে মাথার স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন৷ তারপর শ্যাম্পু করে নিন। দ্রুতই ফল মিলবে।