banner

শেষ আপডেট ১১ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২২:৪৫  ||   বুধবার, ১২ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

মাহিয়া মাহি অভিনীত সিনেমা ‘পবিত্র ভালোবাসা’ মুক্তি পেয়েছে

মাহিয়া মাহি অভিনীত সিনেমা ‘পবিত্র ভালোবাসা’ মুক্তি পেয়েছে

১০ অক্টোবর ২০১৮ | ২১:২৩ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • মাহিয়া মাহি অভিনীত সিনেমা ‘পবিত্র ভালোবাসা’ মুক্তি পেয়েছে
বুলবুল ভট্টাচার্য্যঃ অবশেষে গত শুক্রবার(৫ অক্টোবর) মুক্তি পেয়েছে চাটগাঁ ফিল্ম প্রোডাকশন লিঃ কর্তৃক প্রযোজিত ও পরিবেশিত  মাহিয়া মাহি অভিনীত সিনেমা ‘পবিত্র ভালোবাসা’। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন নির্মাতা এ কে সোহেল। এতে মাহির সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন রোকন উদ্দিন।
সিনেমাতে মাহি, রোকন উদ্দিন, ফেরদৌস ও মৌসুমী ছাড়াও অভিনয় করেছেন সুচরিতা, সাদেক বাচ্চু, আফজাল শরীফ, প্রবীর মিত্র, রেবেকা,পংকজ বৈদ্য সুজন,সুজিত কুমার দাশ,সজল চৌধুরী,ইলিয়াস কোবরা, মীনানাথ ধর প্রমুখ।
received_276787409618492
এটি পরিচালনার পাশাপাশি কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ করেছেন এ কে সোহেল। প্রযোজনা করেছেন চাটগাঁ ফিল্ম প্রোডাকশন। এই চাটগাঁ ফিল্ম প্রোডাকশনে পার্টনার পরিচালক হিসেবে আছেন মোট ২৮ জন। তৎমধ্যে শফিক আহমেদ বড় মিয়া-চেয়ারম্যান,লায়ন এম.শফিউল আলম-ব্যাস্থাপনা পরিচালক, ওমর ফারুখ-উপ ব্যাস্থাপনা পরিচালক,সুজিত কুমার দাশ-পরিচালক(অর্থ)এবং নির্বাহী পরিচালক যথাক্রমে হাসেম আলী,আলী হোসেন ও সুমন কান্তি দে। সিনেমার সংগীত পরিচালনা করছেন ইমন সাহা। কণ্ঠ দিয়েছেন এন্ড্রু কিশোর, সুবীর নন্দী, সামিনা চৌধুরী, মমতাজ, কনা, পলাশ, কিশোর ও মনির খান।
IMG_20181010_132337
উল্লেখ্য, চাটগাঁ ফিল্ম প্রোডাকশন লিঃ এর “পবিত্র ভালোবাস” ছবিটির মূল উদ্যোক্তা পংকজ বৈদ্য সুজন।তিনি এক সময়কার পর্দা কাঁপানো “উজান ভাটি” ছায়াছবির নায়ক ছিলেন। তার একনিষ্ঠ প্রচেষ্টায় চট্টগ্রামের সংস্কৃতি মনা ব্যাক্তিদের নিয়ে এই প্রথম বারের মতো চট্টগ্রাম থেকে ছায়াছবির যাত্রা। আলাপকালে তিনি বলেন,একটি ছায়াছবি দেশ তথা সমাজ বির্নিমানে অনেক ভুমিকা রাখে। আমরা নিজেদের প্রচেষ্টায় এতটুকু করার চেষ্টা করেছি। দর্শকদের ভালোবাসা পেলে, দর্শকদের হলমুখী করার স্বার্থে ভবিষ্যতে আরো  ভালো মানের সিনেমা করবে আমাদের চাটগাঁ ফ্লিম প্রোডাকশন লিমিটেড।
ছবির গল্পে দেখা যাবে, মায়াদেবী (মৌসুমী) হিন্দু সমাজের পঞ্চায়েত প্রধান। দিদার পাশা (ফেরদৌস) মুসলিম সমাজের পঞ্চায়েত প্রধান। দুজন দুজনকে গভীরভাবে ভালোবাসেন। কিন্তু ধর্মীয় অনুশাসন, কঠিন দেয়াল আর সামাজিক নিয়মনীতির শিকলে দুজনের ভালোবাসা বন্দি। দুজনই ধর্মীয় সম্মানে ও সামাজিক মর্যাদাকে অক্ষুণ্ণ রাখার জন্য নিজেদের গভীর ভালোবাসাকে সামাজিক স্বীকৃতি দেন না।
অপরদিকে মায়াদেবীর ছোট ভাই রাহুল (রোকন) ভালোবাসে দিদার পাশার ছোট বোন রোজীকে (মাহি)। তাদের প্রেম ভালোবাসা নিয়ে দ্বন্দ্ব-সংঘাত হিন্দু-মুসলিম দুই পঞ্চায়েত প্রধানের মধ্যে, এটা ধর্মীয় কোনও দ্বন্দ্ব নয়, পবিত্র ভালোবাসার দ্বন্দ্ব।
received_296286191191568
এ ছবিটি বর্তমানে ঢাকা-বলাকা,অভিসার,জোনাকী,এশিয়া,পূরবী সাহীন
ময়মনসিং-ছায়াবানী,টংগী-চম্পাকলী,কাঁচপুর-চাঁদমহল,শেরপুর-রুপকথা,খুলনা-সংঙ্গীতা,লিবার্টি নারায়নগঞ্জ-নিউমেট্রো,হবিগঞ্জ-মোহন,সাভার-চন্দ্রিমা,বিলাস,মাদারীপুর-মিলন,শাহজাদপুর-বর্নালীসহ আরো বেশ কিছু হলে একযোগে চলছে। এছাড়া আগামী শুক্রবার(১২ অক্টোবর) থেকে চট্টগ্রামের আলমাস,সিনেমা প্যালেস সহ বেশ কয়েকটি হলে ছবিটি দেখা যাবে বলে জানা গেছে।
এর আগে ছবির পরিচালক ‘খায়রুন সুন্দরী’ নামে চলচ্চিত্র নির্মাণ করে তুমুল সাড়া ফেলেছিলেন। “পবিত্র ভালোবাসা” নামের এ নতুন ছবিটিও দর্শকদের হৃদয় ছুঁয়ে যাবে প্রত্যাশা করছেন সিনেমা সংশ্লিষ্টরা।