banner

শেষ আপডেট ১১ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২২:৪৫  ||   বুধবার, ১২ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

হিরণ্ময় নেতা মান্নান ভাই-সারথী দানু ভাই স্মরণ

হিরণ্ময় নেতা মান্নান ভাই-সারথী দানু ভাই স্মরণ

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১৯:৪৯ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হিরণ্ময় নেতা মান্নান ভাই-সারথী দানু ভাই স্মরণ

মোস্তফা  কামাল  পাশা ঃ  এম এ মান্নান চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের এক হিরণ্ময় পুরুষ। কর্মীবান্ধব এই মহাণ নেতা রাজসিকভাবে মহাযাত্রা করেন ২০০৯ সালের এই দিনে। পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ের পর তাঁর আকস্মিক প্রয়াণ চট্টগ্রামের দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তেরর মানুষকে শোক সাগরে ভাসিয়ে দেয়। মান্নান ভাই তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, দূরদর্শীতা, মেধা ও জ্ঞানের আলোয় এই অষ্ণলকে আলোকিত করেছেন। হঠাৎ করে তাঁর আকস্মিক প্রস্থানে চট্টগ্রামের শুদ্ধ, জ্ঞাননির্ভর রাজনীতির সবচে’ উজ্জ্বল বাতিটি নিভে যায়। অত্যন্ত বিনয়ী ও শুদ্ধাচারী মান্নান ভাইয়ের রাজনীতির ধারা ও ষ্টাইলটা ছিল অন্যমাত্রার। যা, চট্টগ্রামের অন্য কোন নেতার সাথে মিলেনা।

রাজনীতিকে তিনি সবকিছু দিয়েছেন- তুলনায় নিয়েছেন কম। মুক্তিযুদ্ধের পূর্বাষ্ণলের অধিনায়ক মান্নান ভাই মন্ত্রী, এম পিসহ দল ও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ অনেক দায়িত্ব পালন করেছেন। চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের অন্যতম স্তম্ভ রাজনীতির সিদ্ধ পুরুষ মান্নান ভাই ছিলেন বাস্তবেই রাজনীতির হিরণ্ময় জাতক। অর্থবিত্ত, খ্যাতির লোভ কখনো তাঁকে স্পর্শ করতে পারেনি। যদিও মন্ত্রী হওয়ার পর কয়েক নেতা ও নিকট আত্মীয়ের কারনে তিনি কিছুটা বিতর্কিত হয়েছেন। কিন্তু বিত্তের হিসাব বিমূখ মানুষটির শিশুসূলভ সারল্যের কাছে এই বিতর্ক খাটি হিরের দ্যূতিতে কাঁচের আঁচড়ের মতোই। কারণ তিনি চাইলে মুক্তিযুদ্ধের পর প্রচুর সম্পদের মালিক হতে পারতেন। রাজনীতির অস্ত্র অপপ্রয়োগ করে হাজার কোটি টাকার মালিক হতে পারতেন। বিপরীতে নিজের পারিবারিক সম্পত্তি বিক্রি করে তিনি নিম্নবিত্তের জীবনকেই বেছে নিয়েছেন। লেখাপড়া, জ্ঞানচর্চা ও দলীয় কর্মীদের রাজনৈতিক পরিশুদ্ধিই ছিল তাঁর জীবনে মহান ব্রত। ব্রতচারী বলেই রাজনীতির এই বিরল হিরকখন্ডটি রঙিন কাঁচের সমালোচনার আঁচড় খেয়েছেন। কর্পোরেট রাজনীতিক হলে কখনো এমন হতো না। ওনার বিরল সান্নিধ্যের স্মৃতি তর্পনের ইচ্ছাটি নিজের আকস্মিক ব্যস্ততার কারনে পাথর চাপা দিতে হলো বলে ক্ষমাপ্রার্থনা করছি।

 ২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর দুটো দিনই চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের জন্য শোকের দিন। ২২ সেপ্টেম্বর অকালে চলে যান, আরেক বিরলপ্রজ নেতা কাজি ইনামুল হক দানু। অসম সাহসী বীর মুক্তিযোদ্ধা দানু ভাইকে নিয়ে তাঁর জন্মদিনে লিখেছি। পত্রিকায় লিখেছি আরেকটি লেখা। তাই তাঁকে নিয়ে বেশি এগুচ্ছি না। প্রয়াণ দিবসে দু’ নিবেদিত সারথির স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা ও সালাম।