banner

শেষ আপডেট ২১ অগাস্ট ২০১৮,  ১৩:০৬  ||   বুধবার, ২২ই আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৭ ভাদ্র ১৪২৫

সৌদিয়া পরিবহনের ৬ যাত্রী থেকে ৮০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

সৌদিয়া পরিবহনের ৬ যাত্রী থেকে ৮০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

৮ অগাস্ট ২০১৮ | ১৯:৫১ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সৌদিয়া পরিবহনের ৬ যাত্রী থেকে ৮০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : ফেনী জেলার সদর থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সৌদিয়া পরিবহন এর ১ টি বাস তল্লাশী করে ৩৯,১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ৬ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।
র‌্যাব-৭, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে কক্সবাজার হতে ঢাকাগামী সৌদিয়া পরিবহনের ১টি বাসের মাধ্যমে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী যাত্রী পরিবহনের আড়ালে বিপুল পরিমান ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ ৮ আগস্ট বুধবার র‌্যাবের একটি দল ফেনী জেলার সদর থানার পশ্চিম লালপোলস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপর একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশী করতে থাকে। এসময় ঢাকাগামী সৌদিয়া পরিবহন বাস যার রেজি নং চট্ট মেট্রো-ব ১১-১০৫৯ এর গতিবিধি সন্দেহজনক হলে র‌্যাব সদস্যরা উক্ত বাসটিকে থামানোর জন্য সংকেত দিলে গাড়িটি না থামিয়ে র‌্যাবের চেকপোস্ট অতিক্রম করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা গাড়িটি পিছু নিয়ে আটক করে এবং বাসের যাত্রী ও গাড়ী তল্লাশী করতে থাকে। গাড়ি তল্লাশির এক পর্যায়ে গাড়িতে থাকা ৬ ব্যক্তির আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা খলিলুর রহমান (৫৭), মোঃ রফিক (৪৬), মোঃ করিম (২৭), মোঃ জাকির হোসেন মহসিন (৪৮), এবং মোছাঃ মর্জিনা বেগম (৪৫), ’দেরকে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত যাত্রীদের সম্মুখে আটককৃত ব্যক্তিদের দেহ তল্লাশী করে ৬,৮০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীদেরকে গ্রেফতার করা হয়। তাৎক্ষনিক গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেয়া তথ্য এবং দেখানো মতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত বাসটির ভিতরে ড্রাইভিং সিটের নিচে সুকৌশলে লুকানো অবস্থায় আরও ৩২,৩০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ সর্বমোট ৩৯,১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ উক্ত বাসটি জব্দ করা হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ৯৫ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা এবং জব্দকৃত বাসের আনুমানিক মূল্য ৮০ লক্ষ টাকা।
উদ্ধারকৃত মালামাল ও গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ফেনী সদর থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।