banner

শেষ আপডেট ১৬ অক্টোবর ২০১৮,  ২২:২৪  ||   বুধবার, ১৭ই অক্টোবর ২০১৮ ইং, ২ কার্তিক ১৪২৫

বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বেড়েছে ৬ হাজার কোটি টাকা

বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বেড়েছে ৬ হাজার কোটি টাকা

৩ অগাস্ট ২০১৮ | ১৪:৫৬ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বেড়েছে ৬ হাজার কোটি টাকা

দুইদিনের দরপতন আর তিন কার্যদিবস সূচক উত্থানের মধ্যদিয়ে আরও একটি সপ্তাহ পার করলো দেশের পুঁজিবাজার। আলোচিত সপ্তাহে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সূচক ও বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। একই অবস্থায় লেনদেন হয়েছে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই)।

ফলে বিদায়ী সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদেরও পুঁজি অর্থাৎ বাজার মূলধন বেড়ে ৬ হাজার ৫৯৭ কোটি টাকার বেশি হয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইতে পুঁজি বেড়েছে ৩ হাজার ৬০২ কোটি ৯৪ ‍লাখ ২৪ হাজার ৩২৪ টাকা আর ২ হাজার ৫৪২ কোটি টাকা বেড়েছে সিএসইতে।

টানা তিন সপ্তাহ পর গত সপ্তাহে উভয় বাজারে মূলধন কমেছিলো ৬ হাজার ৫৯৭ কোটি টাকা। বিদায়ী সপ্তাহে সূচক ও বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়লেও কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। এর মধ্যে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে হাজার কোটি টাকার বেশি।

ডিএসই’র তথ্যমতে, আলোচিত এ সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবস ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩ হাজার ৪২৯ কোটি ১ লাখ ৯৭ হাজার ৭৫১ টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৪ হাজার ৪৫৪ কোটি ৭২ লাখ ৯৩ হাজার ৮২৩ টাকা। যা আগের সপ্তাহের তুলনায় ১ হাজার ২৫ কোটি ৭০ লাখ ৯৬ হাজার টাকা ৭২ টাকা কম। শতাংশের হিসাবে ২৩ দশমিক ০৩ শতাংশ কমেছে। এ সপ্তাহে মোট লেনদেনের মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ৮৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

লেনদেনের পাশাপাশি বিদায়ী সপ্তাহে তিন সূচকে পথচলা ডিএসই’র প্রধান সূচক ৯৪ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৩৯৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি ডিএসই-৩০ সূচক ৮ দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৯৯ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরীয়াহ সূচক ২ দশমিক ৩২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৬২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

গেল সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৮১টির, কমেছে ১৩২টির আর অপরিবর্তিত ছিল ২৭টি কোম্পানির শেয়ার। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছিলো ১২৫টির, কমেছে ১৯৭টির আর অপরিবর্তিত ছিল ২০টি কোম্পানির শেয়ার।

এর ফলে ডিএসইতে বিনিয়োগকারীদের বাজার মূলধন ৩ হাজার ৬০২ কোটি ৯৪ ‍লাখ ২৪ হাজার ৩২৪ টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৮২৬ কোটি ২১ লাখ ৩৮ হাজার ৯৭ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ৩ হাজার ৮২৩ কোটি ৬০ ‍লাখ ৯ হাজার ৪৩ টাকা কমে দাঁড়িয়েছিলো ৩ লাখ ৮৩ হাজার ২২৩ কোটি ২৭ লাখ ১৩ হাজার ৭৬৯ টাকা‍।

দেশের অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে সার্বিক সূচক ১৩৪ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৪৩ পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে। গত সপ্তাহে এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ১৬১ কোটি ২৬ লাখ ৬৮ হাজার ৫৫৬ টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিলো ২৪৯ কোটি ১৮ লাখ ৯৩ হাজার ২৬৭ টাকা।

গত সপ্তাহে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৩৬টির, কমেছে ১৩৭টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৬টি কোম্পানির। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছিলো ১৩১টির, কমেছে ১৪৫টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৭টি কোম্পানির শেয়ার।

বেশিরভাগ শেয়ারের দাম বাড়ায় বিদায়ী সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের মূলধন ২ হাজার ৫৪২ কোটি টাকা কমে দাঁড়িয়েছিল। ৩ লাখ ১৭ হাজার ৪৪৩ কোটি ৯ লাখ টাকায়। এর আগের সপ্তাহে ২ হাজার ৭৭৪ কোটি ১ হাজার টাকা কমে ৩ লাখ ১৪ হাজার ৯০১ কোটি ৯ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছিলো।