banner

শেষ আপডেট ১০ ডিসেম্বর ২০১৮,  ২১:০৮  ||   সোমবার, ১০ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

আসামের ৯০ লাখ বাংলাভাষী মুসলমানের কী হবে?

আসামের ৯০ লাখ বাংলাভাষী মুসলমানের কী হবে?

৪ জুলাই ২০১৮ | ২২:০২ |    নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আসামের ৯০ লাখ বাংলাভাষী মুসলমানের কী হবে?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের আসামের ৯০ লাখ বাংলাভাষী মুসলমান আতঙ্কে রয়েছেন। তাদের নিয়ে সিদ্ধান্ত দিতে পারেনি রাজ্যসরকার। জাতীয় নাগরিক পঞ্জী হালনাগাদ নিয়েই তাদের যত ভয়।

ভারতের আসামে জাতীয় নাগরিক পঞ্জী হালনাগাদ করার কাজ শেষপর্যায়ে এসে পৌঁছেছে। সুপ্রিমকোর্টের নজরদারিতে চলা এই প্রক্রিয়া আসামে বসবাসকারী ভারতীয় নাগরিকদের নাম তালিকাভুক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শেষ হবে।

আর জাতীয় নাগরিক পঞ্জী বা এন আর সির কারণেই আসামে বসবাসকারী বাংলাভাষী প্রায় ৯০ লাখ মুসলমান ভীষণ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

এদিকে সংখ্যাটা মুসলমানদের তুলনায় অনেক কম হলেও বাঙালি হিন্দুদের একটা অংশের মধ্যেও রয়েছে আতঙ্ক।

এন আর সি-র রাজ্য কো-অর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলাকে উদ্ধৃত করে গণমাধ্যমে লেখা হয়েছিল যে, প্রায় ৪৮ লাখ মানুষ, যারা আসামে বসবাস করছেন, তারা নিজেদের ভারতীয় নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।

তবে মি. হাজেলা এই উদ্ধৃতিটি সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করেছেন। যে সাংবাদিক ওই তথ্য মি. হাজেলার উদ্ধৃতি বলে লিখেছিলেন, তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার কথাও বলেছেন।

তিনি বলেছেন যে, অবৈধভাবে আসামে বসবাসকারী মানুষের সংখ্যাটা ৫০ হাজারের কাছাকাছি হবে।

ওই দেশে , যেসব মানুষকে বিদেশি বলে চিহ্নিত করা হবে, তাদের ভবিষ্যৎ কী হবে!

ভারত আর বাংলাদেশের মধ্যে যেহেতু বিদেশি বা বাংলাদেশি বলে চিহ্নিত ব্যক্তিদের ফেরত পাঠানোর কোনো চুক্তি নেই, তাহলে যেসব মানুষ কয়েক প্রজন্ম ধরে ভারতকেই নিজেদের দেশ বলে মনে করে এসেছেন, তাদের নিয়ে কী করা হবে।